ঢাকা ১১:৪৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেইজবুক আইডি হ্যাক করে বঙ্গবন্ধু ও ইউএনওকে নিয়ে কটুক্তি

আমতলী (বরগুনা ) প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : ০২:৩৫:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪ ১১ বার পড়া হয়েছে

ফেইজবুক আইডি হ্যাক করে একটি প্রতারক চক্র জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলমকে নিয়ে কটুক্তি করেছে। এতে বিপাকে পড়েছে মোঃ সজল নামের এক যুবক। এ ঘটনায় সোমবার মোঃ সজল ঢাকার তেজগাঁও থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছে। সজল প্রশাসনের কাছে প্রতারক হ্যাকার চক্রের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানিয়েছেন।

জানা গেছে, ২০১৬ সালে আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের গোজখালী গ্রামের বারেক মৃধার ছেলে সজল এলএস আতিক হাসান সজল নামের একটি আই খোলেন। গত দের বছরে আগে ওই আইডি প্রতারক হ্যাকার চক্র হ্যাক করে নিয়ে যায়। এর পর থেকে ওই আইডি স্বজল ব্যবহার করছেন না। কিন্তু গত ২৮ জুন আমতলী নিউজ নামের একটি পেইজে হ্যাকার চক্র ওই আইডি ব্যবহার করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলমের নামে কটুক্তি করেছে। ওই হ্যাকার চক্র সজলকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হয়রানী করতেই এমন কান্ড ঘটিয়েছেন। বর্তমানে ওই আইডি খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। এ ঘটনায় সজল সোমবার ঢাকার তেজগাঁও থানার সাধারণ ডায়েরী করেছেন।

মোঃ সজল বলেন, হ্যাকার চক্র গত দের বছর আগে আমার (Ls Atik Hasan sajol) আইডি হ্যাক করে নিয়ে যায়। ওই থেকে আমি ওই আইডি ব্যবহার করছি না। কিন্তু গত ২৮ জুন ওই আইডি ব্যবহার করে আমতলী নিউজ নামের একটি পেইজে আমার ছবি ব্যবহার করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলমের নামে কটুক্তি করেছে। আমি এর সম্পর্কে কিছুই জানিনা। যারা আমার হ্যাক হওয়া আইডি ব্যবহার করে কটুক্তি করেছে আমি তাদের শাস্তি দাবী করছি।

আমতলী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, অভিযোগ পেলে অনুসন্ধান করে হ্যাকারদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলম বলেন, সজলকে প্রমাণ করতে হবে তিনি ওই আইডি ব্যবহার করছেন না। তাহলে যারা আইডি হ্যাক করে কটুক্তি করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ফেইজবুক আইডি হ্যাক করে বঙ্গবন্ধু ও ইউএনওকে নিয়ে কটুক্তি

আপডেট সময় : ০২:৩৫:৫৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪

ফেইজবুক আইডি হ্যাক করে একটি প্রতারক চক্র জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলমকে নিয়ে কটুক্তি করেছে। এতে বিপাকে পড়েছে মোঃ সজল নামের এক যুবক। এ ঘটনায় সোমবার মোঃ সজল ঢাকার তেজগাঁও থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছে। সজল প্রশাসনের কাছে প্রতারক হ্যাকার চক্রের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানিয়েছেন।

জানা গেছে, ২০১৬ সালে আমতলী উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের গোজখালী গ্রামের বারেক মৃধার ছেলে সজল এলএস আতিক হাসান সজল নামের একটি আই খোলেন। গত দের বছরে আগে ওই আইডি প্রতারক হ্যাকার চক্র হ্যাক করে নিয়ে যায়। এর পর থেকে ওই আইডি স্বজল ব্যবহার করছেন না। কিন্তু গত ২৮ জুন আমতলী নিউজ নামের একটি পেইজে হ্যাকার চক্র ওই আইডি ব্যবহার করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলমের নামে কটুক্তি করেছে। ওই হ্যাকার চক্র সজলকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হয়রানী করতেই এমন কান্ড ঘটিয়েছেন। বর্তমানে ওই আইডি খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। এ ঘটনায় সজল সোমবার ঢাকার তেজগাঁও থানার সাধারণ ডায়েরী করেছেন।

মোঃ সজল বলেন, হ্যাকার চক্র গত দের বছর আগে আমার (Ls Atik Hasan sajol) আইডি হ্যাক করে নিয়ে যায়। ওই থেকে আমি ওই আইডি ব্যবহার করছি না। কিন্তু গত ২৮ জুন ওই আইডি ব্যবহার করে আমতলী নিউজ নামের একটি পেইজে আমার ছবি ব্যবহার করে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলমের নামে কটুক্তি করেছে। আমি এর সম্পর্কে কিছুই জানিনা। যারা আমার হ্যাক হওয়া আইডি ব্যবহার করে কটুক্তি করেছে আমি তাদের শাস্তি দাবী করছি।

আমতলী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, অভিযোগ পেলে অনুসন্ধান করে হ্যাকারদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলম বলেন, সজলকে প্রমাণ করতে হবে তিনি ওই আইডি ব্যবহার করছেন না। তাহলে যারা আইডি হ্যাক করে কটুক্তি করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।