ঢাকা ১০:৩৫ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ :

অগ্রযাত্রা সংস্থার ভূয়া বিজ্ঞপ্তি দিয়ে কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : ০১:১৪:০০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১০ বার পড়া হয়েছে

রাজারহাট উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের হরিশ্বর তালুক গ্রামে অবস্হিত অগ্রযাত্রা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার একটি ভূয়া নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কোটি টাকা হাতানোর ষড়যন্ত্র ফাঁস হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানাযায় রাজারহাট ইউপির হরিশ্বর তালুক গ্রামে অবস্হিত নাম সর্বস্ব একটি প্রতিষ্ঠান ২০১২সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।যা সমাজ সেবা অধিদপ্তর থেকে রেজিষ্ট্রেশন প্রাপ্ত। রেজি নং ৬৮৮ এবং একই সাথে এনজিও বিষয়ক ব্যুরো হিসেবেও রেজিষ্ট্রেশন প্রাপ্ত হন। যার রেজি নং ২৭৪৭ প্রতিষ্ঠান টি সম্প্রতি সময়ে তাদের নিজস্ব ওয়েব সাইট” আসুসবিডি ডট অর্গানাইজেশন”থেকে ৪ঠা মে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার নাম ভাঙ্গিয়ে ভূয়া নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে ২১ হাজার ৭শত ৮৮ জন জনবল নিয়োগ উল্লেখ করেন।উক্ত নিয়োগ বিঙ্গপ্তিতে জোনাল ম্যানেজার থেকে শুরু করে নৈশপ্রহরী পর্যন্ত মোট ১৪টি পদের জন্য ২১ হাজার ৭শত ৮৮জন কে আবেদন করার কথা বলা হয়। প্রথম পদ টি ছাড়া বাকি পদ গুলোতে ৩০০/২০০ টাকার ড্রাফট অফেরতযোগ্য অগ্রযাত্রা সমাজ উন্নয়ন সংস্থা (এ এস ইউ এস) হিসাব শিরোনামে ইসলাম ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ চলতি হিসাব নং ২০৫০৪১০০১০০০৭০৯০৮ নম্বরে পাঠাতে বলা হয়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় প্রতিষ্ঠানটি টিনশেড দিয়ে নির্মিত ও পরিত্যাক্ত অবস্থায় একটি ঘরে এনজিওর সাইবোর্ড ঝুলিয়ে এতো বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির কথা শুনে এলাকাবাসীর মাঝে তোলপাড় শুরু হয়। বিজ্ঞপ্তিতে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় ৪ মে প্রকাশিত হবার কথা উল্লেখ করা হলেও বাস্তবে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় এধরনের কোন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিই প্রকাশ করা হয়নি।

এবিষয়ে অগ্রযাত্রার চেয়ারম্যান হরিশ্বর তালুক গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল খালেক ইরানী বলেন,আমি এই বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ সম্পর্কে কিছুই জানিনা।বিউটি আক্তার নামের একজন এনজিও কর্মী যিনি ঢাকায় থাকেন এনজিও সম্পর্কিত বিষয়াদী নিয়ে কাজ করেন।সে একদিন আমাকে আমার এনজিওর মাধ্যমে দুস্থ পথ শিশুদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিয়ে কাজ করার জন্য চীনের সাহায্য এনে দেওয়ার কথা বলেন।সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে আমি রাজি হই,পরে সে আমাকে জানান চীনের সাথে যোগাযোগ করতে হলে প্রতিষ্ঠানের একটি নিজস্ব ওয়েব সাইট লাগবে।তাই প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রাদি তাকে সরবরাহ করি।পরে হঠাৎ সাংবাদিকদের মাধ্যমে জানতে পারি যে আমার প্রতিষ্ঠানের নামে বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।যা শুনে আমিও অবাক হয়েছি।তবে আমি এই বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

এবিষয়ে বিউটি আক্তার কে ফোন দিলে অন্য একজন ফোন রিসিভ করে তার অসুস্থতার কথা বলে ফোন রেখে দেন।

অত্র এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম ব্যপাড়ি জানান প্রতিষ্ঠানটি তো অনেক বছর থেকে দেখে আসছি তবে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির বিষয়ে কিছু জানি না।

এ বিষয়ে উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মশিউর রহমান বলেন অগ্রযাত্রা সংস্থার সাথে কোন রকম যোগাযোগ নাই। এবং এ সংস্থার কমিটির মেয়াদও শেষ হয়ে গেছে। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের কথা জিজ্ঞেস করলে এ ব্যাপারে তিনি কিছু জানেন না বলে জানান সাংবাদিককে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

অগ্রযাত্রা সংস্থার ভূয়া বিজ্ঞপ্তি দিয়ে কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টা

আপডেট সময় : ০১:১৪:০০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

রাজারহাট উপজেলার সদর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের হরিশ্বর তালুক গ্রামে অবস্হিত অগ্রযাত্রা সমাজ উন্নয়ন সংস্থার একটি ভূয়া নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে কোটি টাকা হাতানোর ষড়যন্ত্র ফাঁস হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানাযায় রাজারহাট ইউপির হরিশ্বর তালুক গ্রামে অবস্হিত নাম সর্বস্ব একটি প্রতিষ্ঠান ২০১২সালে প্রতিষ্ঠিত হয়।যা সমাজ সেবা অধিদপ্তর থেকে রেজিষ্ট্রেশন প্রাপ্ত। রেজি নং ৬৮৮ এবং একই সাথে এনজিও বিষয়ক ব্যুরো হিসেবেও রেজিষ্ট্রেশন প্রাপ্ত হন। যার রেজি নং ২৭৪৭ প্রতিষ্ঠান টি সম্প্রতি সময়ে তাদের নিজস্ব ওয়েব সাইট” আসুসবিডি ডট অর্গানাইজেশন”থেকে ৪ঠা মে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার নাম ভাঙ্গিয়ে ভূয়া নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে ২১ হাজার ৭শত ৮৮ জন জনবল নিয়োগ উল্লেখ করেন।উক্ত নিয়োগ বিঙ্গপ্তিতে জোনাল ম্যানেজার থেকে শুরু করে নৈশপ্রহরী পর্যন্ত মোট ১৪টি পদের জন্য ২১ হাজার ৭শত ৮৮জন কে আবেদন করার কথা বলা হয়। প্রথম পদ টি ছাড়া বাকি পদ গুলোতে ৩০০/২০০ টাকার ড্রাফট অফেরতযোগ্য অগ্রযাত্রা সমাজ উন্নয়ন সংস্থা (এ এস ইউ এস) হিসাব শিরোনামে ইসলাম ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ চলতি হিসাব নং ২০৫০৪১০০১০০০৭০৯০৮ নম্বরে পাঠাতে বলা হয়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় প্রতিষ্ঠানটি টিনশেড দিয়ে নির্মিত ও পরিত্যাক্ত অবস্থায় একটি ঘরে এনজিওর সাইবোর্ড ঝুলিয়ে এতো বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির কথা শুনে এলাকাবাসীর মাঝে তোলপাড় শুরু হয়। বিজ্ঞপ্তিতে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় ৪ মে প্রকাশিত হবার কথা উল্লেখ করা হলেও বাস্তবে দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকায় এধরনের কোন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিই প্রকাশ করা হয়নি।

এবিষয়ে অগ্রযাত্রার চেয়ারম্যান হরিশ্বর তালুক গ্রামের বাসিন্দা আব্দুল খালেক ইরানী বলেন,আমি এই বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ সম্পর্কে কিছুই জানিনা।বিউটি আক্তার নামের একজন এনজিও কর্মী যিনি ঢাকায় থাকেন এনজিও সম্পর্কিত বিষয়াদী নিয়ে কাজ করেন।সে একদিন আমাকে আমার এনজিওর মাধ্যমে দুস্থ পথ শিশুদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষা নিয়ে কাজ করার জন্য চীনের সাহায্য এনে দেওয়ার কথা বলেন।সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে আমি রাজি হই,পরে সে আমাকে জানান চীনের সাথে যোগাযোগ করতে হলে প্রতিষ্ঠানের একটি নিজস্ব ওয়েব সাইট লাগবে।তাই প্রয়োজনীয় কাগজ পত্রাদি তাকে সরবরাহ করি।পরে হঠাৎ সাংবাদিকদের মাধ্যমে জানতে পারি যে আমার প্রতিষ্ঠানের নামে বিশাল নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।যা শুনে আমিও অবাক হয়েছি।তবে আমি এই বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

এবিষয়ে বিউটি আক্তার কে ফোন দিলে অন্য একজন ফোন রিসিভ করে তার অসুস্থতার কথা বলে ফোন রেখে দেন।

অত্র এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম ব্যপাড়ি জানান প্রতিষ্ঠানটি তো অনেক বছর থেকে দেখে আসছি তবে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির বিষয়ে কিছু জানি না।

এ বিষয়ে উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা মশিউর রহমান বলেন অগ্রযাত্রা সংস্থার সাথে কোন রকম যোগাযোগ নাই। এবং এ সংস্থার কমিটির মেয়াদও শেষ হয়ে গেছে। নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের কথা জিজ্ঞেস করলে এ ব্যাপারে তিনি কিছু জানেন না বলে জানান সাংবাদিককে।