ঢাকা ১১:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ৪ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জয়পুরহাটে মুরগির র্ফ্রাম থেকে উদ্ধার হল চোরাই গরু

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট সময় : ১২:০৪:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ৬৯ বার পড়া হয়েছে

সম্প্রতি জয়পুরহাট জেলার বিভিন্ন এলাকায় প্রতিনিয়ত বেড়ে যাচ্ছে চোর চক্রের দৌরাত্ম্য। সেই সাথে বেড়েছে খুন, ব্লাকমেইল সহ বিভিন্ন ধরনের অসামাজিক কর্মকান্ড।।
থানা পুলিশের চৌকশ তদারকি থাকলেও কোন ভাবে সনাক্ত করা সম্ভব হচ্ছেনা চোর চক্রের সদস্য দের।।
এমনি একটি ঘটনার জেরে গত কাল রাতে জয়পুরহাট কালাই উপজেলার বালাখুর গ্রামের শহিদুল ইসলাম এর বাড়ি থেকে ২ টি গরু চুরি করে চোর চক্রের সদস্যরা।
শহিদুল ও তার পরিবারের সদস্যরা অনেক খোজাখুজি করার পরে আজ সকাল ১০ টার সময় ক্ষেতলাল উপজেলার পাঠানপাড়া টু মাত্রার রোডের মাঝখানে ঢাকার মোড় নামক স্থানে একটি মুরগী ও গরুর সেট থেকে চুরি যাওয়া গরুর আলামত পেয়ে গ্রামের লোকজন সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ভিড় জমাতে দেখা যায়।।

এদিকে ভুক্তভোগী পরিবার ও আসপাশের লোকজনের দাবি চোড়াই গরু কেন সেটের ভেতরে বেধে রাখা হয়েছে।। তাদের দাবি গরু চুরির সাথে সেটের লোকজন জরিত আছে।
এদিকে ঘটনার সুত্র ধরে বড়তারা ১ নং ওয়াড মেম্বার জাকারিয়া হোসেন রুমি কালাই থানায় ফোন কলে ঘটনার বিস্তারিত জানালে পুলিশের একটি টিম এসে উপস্তিতির হন।।
এ সময় সাংবাদিক দের প্রশ্নের জবাবে এস, আই,ওসমান বলেন, আমরা জানতে পেরেছি শহিদুল ইসলাম এর ২ টি গরু চুরি হয়েছে যার মধ্যে আমরা একটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি।।তবে অপর গরুর সন্ধানে আমারা কাজ করে যাচ্ছি বলে তিনি যানান।।
এ সময় উক্ত ফ্রার্মের ম্যানেজার গোলাপ হোসেন এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমরা মাএ গরুটি সরিশা ক্ষেত থেকে নিয়ে ফ্রার্মে রেখেছি চোর চক্রের সাথে আমাদের কোন সম্পর্ক নেই। এ ছাড়া ফ্রার্মের নাইট গার্ড আবু জাফর বলেন আমাদের অপরাধ হল গরুটিকে আমাদের ফ্রার্মে রেখেছি।। এদিকে এস, আই, ওসমানের দিক নির্দেশনায় আপাতত গরুটি মালিকের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে অন্য গরুর বিষয় টি আমলে নিয়ে তদন্ত চলমান রেখে যদি ফ্রার্মের সদস্যরা অপরাধী প্রমানিত হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

জয়পুরহাটে মুরগির র্ফ্রাম থেকে উদ্ধার হল চোরাই গরু

আপডেট সময় : ১২:০৪:৪৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

সম্প্রতি জয়পুরহাট জেলার বিভিন্ন এলাকায় প্রতিনিয়ত বেড়ে যাচ্ছে চোর চক্রের দৌরাত্ম্য। সেই সাথে বেড়েছে খুন, ব্লাকমেইল সহ বিভিন্ন ধরনের অসামাজিক কর্মকান্ড।।
থানা পুলিশের চৌকশ তদারকি থাকলেও কোন ভাবে সনাক্ত করা সম্ভব হচ্ছেনা চোর চক্রের সদস্য দের।।
এমনি একটি ঘটনার জেরে গত কাল রাতে জয়পুরহাট কালাই উপজেলার বালাখুর গ্রামের শহিদুল ইসলাম এর বাড়ি থেকে ২ টি গরু চুরি করে চোর চক্রের সদস্যরা।
শহিদুল ও তার পরিবারের সদস্যরা অনেক খোজাখুজি করার পরে আজ সকাল ১০ টার সময় ক্ষেতলাল উপজেলার পাঠানপাড়া টু মাত্রার রোডের মাঝখানে ঢাকার মোড় নামক স্থানে একটি মুরগী ও গরুর সেট থেকে চুরি যাওয়া গরুর আলামত পেয়ে গ্রামের লোকজন সহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা ভিড় জমাতে দেখা যায়।।

এদিকে ভুক্তভোগী পরিবার ও আসপাশের লোকজনের দাবি চোড়াই গরু কেন সেটের ভেতরে বেধে রাখা হয়েছে।। তাদের দাবি গরু চুরির সাথে সেটের লোকজন জরিত আছে।
এদিকে ঘটনার সুত্র ধরে বড়তারা ১ নং ওয়াড মেম্বার জাকারিয়া হোসেন রুমি কালাই থানায় ফোন কলে ঘটনার বিস্তারিত জানালে পুলিশের একটি টিম এসে উপস্তিতির হন।।
এ সময় সাংবাদিক দের প্রশ্নের জবাবে এস, আই,ওসমান বলেন, আমরা জানতে পেরেছি শহিদুল ইসলাম এর ২ টি গরু চুরি হয়েছে যার মধ্যে আমরা একটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছি।।তবে অপর গরুর সন্ধানে আমারা কাজ করে যাচ্ছি বলে তিনি যানান।।
এ সময় উক্ত ফ্রার্মের ম্যানেজার গোলাপ হোসেন এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন, আমরা মাএ গরুটি সরিশা ক্ষেত থেকে নিয়ে ফ্রার্মে রেখেছি চোর চক্রের সাথে আমাদের কোন সম্পর্ক নেই। এ ছাড়া ফ্রার্মের নাইট গার্ড আবু জাফর বলেন আমাদের অপরাধ হল গরুটিকে আমাদের ফ্রার্মে রেখেছি।। এদিকে এস, আই, ওসমানের দিক নির্দেশনায় আপাতত গরুটি মালিকের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে অন্য গরুর বিষয় টি আমলে নিয়ে তদন্ত চলমান রেখে যদি ফ্রার্মের সদস্যরা অপরাধী প্রমানিত হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।