ঢাকা ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ :

ঠাকুরগাঁও হরিপুরে ঝুঁকিপূর্ণ ব্রীজ দুর্ঘটনার আশঙ্কা 

নিজস্ব প্রতিবেদন
  • আপডেট সময় : ০৯:০০:৪২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২৪ ৪০ বার পড়া হয়েছে
জহুরুল ইসলাম জীবন হরিপুর (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি সুজন আহম্মেদ: ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর যমুনা খালের উপর নির্মিত শুকানী ব্রীজটি দীর্ঘ ৭ বছর ধরে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এতে ২০ গ্রামের দুই লক্ষাধিক মানুষ বাধ্য হয়ে ওই ব্রিজের উপর দিয়ে জীবন ঝুঁকিনিয়ে যাতায়াত করছে। যেকোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।
হরিপুর উপজেলা থেকে প্রায় ১২ কিঃমিঃ দূরে ঠাকিঠুকি চৌরাস্তা থেকে ১ কিঃমিঃ দূরত্বে যমুনার খালের উপর ব্রিজটির অবস্থান। গত ৩৬ বছর পূর্বে আরডিআরএস এটি নির্মাণ করে যা শুকানী ব্রীজ নামে পরিচিত। স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার ২নং আমগাঁও ইউনিয়ন ও ৩নং বকুয়া ইউনিয়নের মাঝে শুকানী গ্রামের মধ্যে যমুনার মরা খাল সরকারিভাবে খনন করা হয়। খাল খননের সময় ব্রিজের নিচের সলিংয়ের চাইতে বেশি গভীর করে খালের মাটি কাটার কারনে এই ৩৬ বছরের পুরাতন ব্রিজটি গত ৭বছর পূবে বণ্যার পানির স্রোতে ব্রিজের নিচের মাটি সরে গিয়ে ব্রিজটির মধ্যের অংশ দেবে গিয়েছে এবং সরজমিনের সাথে সংযুক্ত হয়েছে।
জীবন ঝুঁকি নিয়ে দিনে-রাতে বিভিন্ন যানবাহন নিয়ে কোন মত চলাচল করছে মানুষ। এমতাবস্থায় পুরো ব্রিজটি ধসে পড়লে ২০টি গ্রামের মানুষ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্যবসা বাণিজ্য, হাটবাজার, জরুরী চিকিৎসা সেবার রোগীদের পড়তে হবে মহা বিপদে। কারণ এই রাস্তাটি ছাড়া উপজেলা সদরের সাথে যোগাযোগের আর কোন বিকল্প রাস্তা নাই। তাই এলাকাবাসি জরুরী ভিত্তিত্বে ওই স্থানে নতুন ব্রিজ নির্মানের জন্য সংশ্লিষ্ঠ দপ্তরের নিকট জোর দাবি করেছেন।
উপজেলা প্রকৌশলী মাইনুল ইসলাম বলেন, জরুরীভিত্তিতে এই জনবহুল এলাকার ব্রীজটি দ্রুত নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ঠ দপ্তরকে জানানো হয়েছে অর্থ বরাদ্দ পেলেই অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এই ব্রীজের কাজ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

আপলোডকারীর তথ্য

ঠাকুরগাঁও হরিপুরে ঝুঁকিপূর্ণ ব্রীজ দুর্ঘটনার আশঙ্কা 

আপডেট সময় : ০৯:০০:৪২ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২৪
জহুরুল ইসলাম জীবন হরিপুর (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি সুজন আহম্মেদ: ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর যমুনা খালের উপর নির্মিত শুকানী ব্রীজটি দীর্ঘ ৭ বছর ধরে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এতে ২০ গ্রামের দুই লক্ষাধিক মানুষ বাধ্য হয়ে ওই ব্রিজের উপর দিয়ে জীবন ঝুঁকিনিয়ে যাতায়াত করছে। যেকোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা।
হরিপুর উপজেলা থেকে প্রায় ১২ কিঃমিঃ দূরে ঠাকিঠুকি চৌরাস্তা থেকে ১ কিঃমিঃ দূরত্বে যমুনার খালের উপর ব্রিজটির অবস্থান। গত ৩৬ বছর পূর্বে আরডিআরএস এটি নির্মাণ করে যা শুকানী ব্রীজ নামে পরিচিত। স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার ২নং আমগাঁও ইউনিয়ন ও ৩নং বকুয়া ইউনিয়নের মাঝে শুকানী গ্রামের মধ্যে যমুনার মরা খাল সরকারিভাবে খনন করা হয়। খাল খননের সময় ব্রিজের নিচের সলিংয়ের চাইতে বেশি গভীর করে খালের মাটি কাটার কারনে এই ৩৬ বছরের পুরাতন ব্রিজটি গত ৭বছর পূবে বণ্যার পানির স্রোতে ব্রিজের নিচের মাটি সরে গিয়ে ব্রিজটির মধ্যের অংশ দেবে গিয়েছে এবং সরজমিনের সাথে সংযুক্ত হয়েছে।
জীবন ঝুঁকি নিয়ে দিনে-রাতে বিভিন্ন যানবাহন নিয়ে কোন মত চলাচল করছে মানুষ। এমতাবস্থায় পুরো ব্রিজটি ধসে পড়লে ২০টি গ্রামের মানুষ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্যবসা বাণিজ্য, হাটবাজার, জরুরী চিকিৎসা সেবার রোগীদের পড়তে হবে মহা বিপদে। কারণ এই রাস্তাটি ছাড়া উপজেলা সদরের সাথে যোগাযোগের আর কোন বিকল্প রাস্তা নাই। তাই এলাকাবাসি জরুরী ভিত্তিত্বে ওই স্থানে নতুন ব্রিজ নির্মানের জন্য সংশ্লিষ্ঠ দপ্তরের নিকট জোর দাবি করেছেন।
উপজেলা প্রকৌশলী মাইনুল ইসলাম বলেন, জরুরীভিত্তিতে এই জনবহুল এলাকার ব্রীজটি দ্রুত নির্মাণের জন্য সংশ্লিষ্ঠ দপ্তরকে জানানো হয়েছে অর্থ বরাদ্দ পেলেই অগ্রাধিকার ভিত্তিতে এই ব্রীজের কাজ করা হবে।